মাওয়া ফেরি ঘাট

মাওয়া ফেরি ঘাট (Mawa Feri Ghat) পর্যটকদের জন্যে নদী ভ্রমণ এবং ইলিশ ভোজন এর জন্যে জনপ্রিয় একটি জায়গা। মাওয়া ফেরি ঘাটের পাড়ে রয়েছে বেশকিছু খাবার হোটেল। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ইলিশ খাওয়ার জন্য অনেকেই মাওয়া ঘাটে ছুটে আসেন। এখানকার মাছের বাজারে ইলিশ ছাড়াও অনেক বাহারি প্রজাতির তাজা মাছ পাওয়া যায়।

ঢাকার কাছে অবস্থান হওয়ায় চট করে পদ্মা পাড়ের এই মাওয়া ফেরি ঘাট হতে দিনে গিয়ে দিনেই ঘুরে আসা যায়। তাই একদিনের ভ্রমণ করার জায়গা হিশেবে অনেকের কাছে মাওয়া ঘাট অনেক জনপ্রিয় একটি স্থান। রুপালী জলের ঝিকিমিকি দেখতে দেখতে পাড় ধরে দূরে হেটে যাওয়া কিংবা পদ্মা পাড়ের শান্ত সবুজ গ্রামের যান্ত্রিকতা ও কোলাহল মুক্ত পরিবেশ আপনাকে আছন্ন করে রাখবে। নৌকায় ঘুরে দেখতে পারবেন পদ্মার বুকে সূর্যাস্তের দৃশ্য। তাছাড়া ধোঁয়া উঠা গরম ভাতের সাথে পদ্মার ইলিশের স্বাদ কি আর অন্য কিছুতে মেটানো সম্ভব! আরও রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা পেতে পদ্মার বুকে ১৫০ টাকা ভাড়ায় স্পীড বোটে এপার থেকে ওপারে যেতে পারেন।

পদ্মার বুকে দাঁড়িয়েছে স্বপ্নের সেতু। এ পথে চলাচলে কমে যাবে মানুষের দুর্ভোগ। ঢাকার সঙ্গে দক্ষিণবঙ্গের যোগাযোগ হয়ে যাবে একেবারে সহজ। পদ্মা পার হতে কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া ঘাটে ফেরিতে ওঠার জন্য অপেক্ষা করতে হবে না গাড়ির যাত্রীদের। হয়তো চোখে পড়বে না কয়েক কিলোমিটারজুড়ে যানজটের চিত্র। নদী পার হতে পণ্যবাহী গাড়ি নিয়ে চালক আর ব্যাপারীদের কয়েক দিনের অপেক্ষা করতে হবে না। এসব কষ্ট মুছে যাবে স্বপ্নের সেতু চালু হলেই। এসব কষ্ট একসময় হয়ে যাবে স্মৃতি।

Scroll to Top